তেলেনাপোতা আবিষ্কার MCQ ও SAQ

শিক্ষালয়ের পক্ষ থেকে একাদশ শ্রেণির শিক্ষার্থীদের জন্য ‘তেলেনাপোতা আবিষ্কার MCQ ও SAQ’ প্রদান করা হলো। শিক্ষার্থীরা এই প্রশ্নগুলির উত্তর তৈরি করলে উপকৃত হবে।  

 

১. তেলেনেপোতা আবিষ্কার গল্পটি পেমেন্দ্র মিত্রের কোন গল্প সংকলনের অন্তর্গত?

উত্তরঃ তেলেনেপোতা আবিষ্কার গল্পটি পেমেন্দ্র মিত্রের কুড়িয়ে ছড়িয়ে গল্প সংকলনের অন্তর্গত।

 

২. তেলেনেপোতা আবিষ্কারের জন্য কজন সঙ্গি থাকা উচিত?

উত্তরঃ তেলেনেপোতা আবিষ্কারের জন্য  দুজন সঙ্গি থাকা উচিত।

 

৩. তেলেনেপোতা আবিষ্কারের জন্য গল্পে কোন মাসের উল্লেখ করা হয়েছে?

 উত্তরঃ তেলেনেপোতা আবিষ্কারের জন্য গল্পে ভাদ্র মাসের উল্লেখ করা হয়েছে।

 

৪. পাতলা কাচের মতো পাখার অধিকারী বলে কথক কাকে বুঝিয়েছেন?

উত্তরঃ পাতলা কাচের মতো পাখার অধিকারী বলে কথক ফড়িংকে বুঝিয়েছেন।

 

৫. গল্পে যামিনীর মা নিজেকে কি বলে সন্মোধন করেছেন?

উত্তরঃ গল্পে যামিনীর মা নিজেকে ঘাটের মড়া বলে সন্মোধন করেছেন।

 

৬. তেলেনেপোতা যাওয়ার শেষ বাহন কি ছিল?

উত্তরঃ তেলেনেপোতা যাওয়ার শেষ বাহন ছিল গোরুর গাড়ি।

 

৭. তেলেনেপোতায় কতো বছর আগে ম্যালেরিয়া হয়েছিল?

উত্তরঃ এক-দেরশো বছর আগে তেলেনেপোতায় ম্যালেরিয়া হয়েছিল।

 

৮. পাঠ্যাংশে আপনি বলতে কাকে বোঝানো হয়েছে?

উত্তরঃ পাঠ্যাংশে আপনি বলতে পাঠককে বোঝানো হয়েছে।

 

৯. কতদিন আগে নিরঞ্জন যামিনীদের বাড়িতে এসেছিল?

উত্তরঃ চার বছর আগে নিরঞ্জন যামিনীদের বাড়িতে এসেছিল।

 

১০. ক্যানেস্তারা বলতে কি বোঝানো হয়েছে বা বস্তুটি কি?

উত্তরঃ ক্যানেস্তারা বলতে  টিনের তৈরি বাদ্য কে বোজানো হয়েছে যা তারা সাধারণত বাঘ তাড়ানোর জন্য ব্যবহার করতো ।

 

১১. একটা কেমন গন্ধ অনেকক্ষণ ধরে সবাইকে অভ্যর্থনা করছে?

উত্তরঃ একটা কটু গন্ধ অনেকক্ষণ ধরে সবাইকে অভ্যর্থনা করছে।

 

১২. তেলেনেপোতাকে শেষপর্যন্ত লেখকের কি বলে মনে হয়েছিল?

উত্তরঃ তেলেনেপোতাকে শেষপর্যন্ত লেখকের অবাস্তব কুয়াশার কল্পনামাত্র বলে মনে হয়েছিল।

 

১৩. “কিন্তু সে কথা ওকে বলে কে?” – কোন কথা?

উত্তরঃ নিরঞ্জন ইতিমধ্যে বিয়ে করে সংসার করছে এই কথা।

 

১৪. “বসে আছেন কেন? টান দিন” – উক্তিটির বক্তা কে?

উত্তরঃ বসে আছেন কেন? টান দিন – উক্তিটির বক্তা  যামিনী।

 

বাংলা বিষয়ের MCQ প্রশ্নের মক টেষ্ট প্রদান করতে নিম্নের ছবিতে ক্লিক/টাচ করতে হবেঃ- 

bengali mock test

 

১৫. তেলেনেপোতা আবিষ্কার করতে হলে কখন বেরোতে হবে?

উত্তরঃ তেলেনেপোতা আবিষ্কার করতে হলে বিকেলের পড়ন্ত রোদে বেরোতে হবে।

 

১৬. “ঘরের অধিকার নিয়ে আপনাদের সঙ্গে সমস্ত রাত বিবাদ করবে” – এখানে লেখক কাদের সাথে বিবাদের কথা বলেছেন?

উত্তরঃ এখানে কথক দু-তিনটি চামচিকার সাথে বিবাদের কথা বলেছেন।

 

১৭. “আমার কথার নড়চড় হবে না” – কে একথা বলেছিল?

উত্তরঃ আমার কথার নড়চড় হবে না – একথা বলেছিল  কথক স্বয়ং।

 

১৮. “যামিনী বলবে” – যামিনী কি বলবে যখন লেখকরা চলে আসতে উদ্যত হবে?

উত্তরঃ যখন লেখকরা চলে আসতে উদ্যত হবে তখন যামিনী বলবে, আপনাদের ছিপটিপ যে পড়ে রইল।

 

১৯. ‘মহাকালের কাছে সাক্ষ দেওয়ার ব্যর্থ আশায় দাঁড়িয়ে আছে’ – এসব দেখে কথকের কি মনে হয়?

উত্তরঃ এসব দেখে কথকের মনে হয় বিশাল মৌন সব প্রহরী গাড়ির দুপাশ দিয়ে যেন সরে যাচ্ছে।

 

২০. “ঘরে ঢুকে বুঝতে পারবেন” – কি বুঝতে পারবেন?

উত্তরঃ ঘরে ঢুকে বুঝতে পারবেন ঘরটির অধিষ্ঠাত্রী আত্মা ক্ষুব্ধ হয়েছেন।

 

তেলেনাপোতা আবিষ্কার গল্পের বড়ো প্রশ্নের উত্তর দেখতে নিম্নের লিঙ্কটি অনুসরণ করতে হবেঃ- 

 

২১. তেলেনেপোতা যাবার সময় বড়ো রাস্তা থেকে নেমে কোথায় দাঁড়াতেই হবে?

উত্তরঃ তেলেনাপোতা যাবার সময় বড়ো রাস্তা থেকে নেমে কোনো এক জলার কাছে দাঁড়াতে হবে।

 

২২. তেলেনাপোতা যাবার আসল উদ্দেশ্য কী ছিল?

উত্তরঃ তেলেনাপোতা যাবার আসল উদ্দেশ্য ছিল মাছ ধরা।

 

২৩. নিরঞ্জন কে ছিল?

উত্তরঃ যামিনীর মায়ের দূর সম্পর্কের এক বোনপো ছিল নিরঞ্জন।

 

২৪. “আমি জানতুম তুই না এসে পারবি না” – কে কাকে বলেছে?

উত্তরঃ যামিনীর মা গল্প কথককে নিরঞ্জন মনে এই কথাগুলো বলেছে।

 

২৫. “প্রতীক্ষাও আপনাদের ব্যর্থ হবে না” – কাদের, কোন প্রতীক্ষা ব্যর্থ হবে না?

উত্তরঃ তেলেনাপোতা আবিষ্কার নামক গল্পে লেখক ও  তার বন্ধুদের প্রতীক্ষা ব্যর্থ হবে  না। কারন একটু পরেই তারা আবছা অন্ধকারে ধীর গতিতে একটি ক্ষীণ আলো প্রজ্বলিত সহ গরুর গাড়িকে এগিয়ে আসতে দেখবে।

 

২৬. গোরুর গাড়িটি দেখে কথকের কি মনে হয়েছিল?

উত্তরঃ গোরু এবং গোরুর গাড়িটিকে দেখে গল্পকথক এবং তার সঙ্গীদের মনে হয়েছিল পাতালের কোনো বামনের দেশ থেকে  গাড়িটি এসেছিল।

 

২৭. মশারা কীভাবে নবাগতদের অভিনন্দন জানাবে বলে কথক মনে করেন?

উত্তরঃ ভাঙা লন্ঠনের চিমনির আলো ক্রমে ক্রমে নিভে আসলে মশার দল ভিড় করে আসে এবং অতিথিদের অভিনন্দন জানানোর জন্য ক্রমাগত হুল ফুটিয়ে চলে।

 

২৮. তেলেনাপোতা আবিষ্কার গল্পে গল্পকথকের বাস করা ঘরটির রুষ্ট আত্মার অভিশাপ কীভাবে বর্ষিত হয়েছিল বসবাসকারীদের ওপর?

উত্তরঃ একটু হাঁটাচলা করলেই ঘরের ছাদের দেওয়াল থেকে ভাঙা প্লাস্টার গল্পকথকের গায়ের ওপর বর্ষিত হচ্ছিল।

 

২৯. “তারপর হঠাৎ জলের শব্দে আপনার চমক ভাঙবে” – চমক ভেঙে কি দেখবেন?

উত্তরঃ চমক ভেঙে গল্পকথক দেখবেন স্থির জল কেঁপে উঠেছে এবং বড়শির ফাতনা তার ফলে ধীরে ধীরে দুলছে।

 

৩০. “তবু মুখে ওর রা নেই” – কার কথা বলা হয়েছে? কোন প্রসঙ্গে কে বলেছে?

উত্তরঃ আলোচ্য অংশে যামিনীর কথা বলা হয়েছে। যামিনীর বৃদ্ধা অসুস্থ মা মনে করেন যে তিনি নানভাবে যামিনীর যন্ত্রণা দিয়ে থাকেন, কিন্তু যামিনী কখনোই তার মাকে তিরস্কার করে না। সেই প্রসঙ্গেই যামিনীর মা  এই কথা বলেছেন।

 

৩১. “থাক না” – কে কোন প্রসঙ্গে বলেছে এই কথা?

উত্তরঃ তেলেনাপোতা আবিষ্কার গল্পে কথক ও তার সাথীরা ফিরে আসার মুহূর্তে গোরুর গারিতে ওঠার সময়ে যামিনী গল্পকথককে লক্ষ করে তার ছিপগুলি পড়ে থাকার কথা বলে। যামিনীকে হয়তো কিছুটা আশ্বস্ত করেই  গল্পকথক থাক না শব্দটি উচ্চারণ করেছিলেন।

 

৩২. মহানগরে ফিরে আসার পর তেলেনাপোতা সম্পর্কে লেখকের কি মনে  হতে থাকে?

উত্তরঃ মহানগরে ফিরে আসার পর  লেখকের মনে তেলেনাপোতার স্মৃতি সুদূর অথচ অতি অন্তরঙ্গ একটি তারার মতো উজ্জ্বল হয়ে আছে।

 

৩৩. “কিন্তু সে কথা ওকে বলবে কে?”- কোন কথা কাকে বলার কথা বলা হয়েছে?

উত্তরঃ নিরঞ্জন যামিনীকে বিয়ে করবে না বলেই বিদেশ যাবার মিথ্যা কথা যামিনীর  মাকে শুনিয়েছিল। নিরঞ্জন যে বহু আগেই বিয়ে করে সংসার পেতেছে সেই কথাটি যামিনীর মাকে যে  বলা যায়নি, সেই কথাই বলা হয়েছে।

 

৩৪. “বসে আছেন কেন? টান দিন”- কে কাকে কিসে টান দেওয়ার কথা বলেছে?

উত্তরঃ তেলেনাপোতা আবিষ্কার নামক গল্পে কথক ও তার দুই বন্ধু তেলেনাপোতায় গিয়েছিল মাছ  ধরার অভিপ্রায়ে। সেখানে কোনো  এক পুকুরে কথককে দির্ঘক্ষন ছিপ হাতে বসে থাকতে দেখে যামিনী কথককে ছিপে টান দেওয়ার কথা  বলেছে।

 

৩৫. “এই অজগর পুরীর ভেতরে বসে সেই আশায় দিন গুনছে” – কে কীসের আশায় দিন গুনছে?

উত্তরঃ যামিনীর মা আশায় দিন গুনছে। যামিনীর মা যামিনীর বাল্য বয়সে তার দূর সম্পর্কের কোনো  এক বোনপোর সাথে যামিনীর বিবাহ স্থির করেন। সেই ছেলেটি বিদেশ থেকে চাকরি করে ফিরে আসার পরে যামিনীকে বিয়ে করবে। সেই আশাতেই বৃদ্ধা দিন গুনছে।

 

তেলেনাপোতা আবিষ্কার গল্প থেকে MCQ প্রশ্নের মক টেষ্ট প্রদান করতে নিম্নের লিঙ্কটি অনুসরণ করতে হবেঃ- 

You cannot copy content of this page