model activity task

CLASS SIX BENGALI MODEL ACTIVITY TASK (PART 4)

ষষ্ঠ শ্রেণি বাংলা মডেল অ্যাকটিভিটি টাস্ক (পার্ট ৪) 

১. ঠিক উত্তরটি বেছে নিয়ে লেখোঃ    

১.১ ‘ভরদুপুরে” কবিতায় ‘শুকনো খড়ের আঁটি’ রয়েছে-

(ক) অশ্বথ গাছের নীচে (খ) মাঠ (গ) গোলাঘরে (ঘ) নৌকোর খোলে

উঃ (ঘ) নৌকোর খোলে 

১.২ ‘তাকে আসতে বলবে কাল’— কাকে আসতে বলা হয়েছে?

(ক) শংকর সেনাপতিকে (খ) অভিমন্যু সেনাপতিকে (গ) বিভীষণ দাশকে (ঘ) পঞ্চানন অপেরার মালিককে

উঃ (খ) অভিমন্যু সেনাপতিকে 

১.৩ ‘আকাশে নয়ন তুলে দাঁড়িয়ে রয়েছে- 

(ক) বুনো পাহাড় (খ) মরুভূমি (গ) প্রভাত সূর্য (ঘ) পাইন গাছ

উঃ (ঘ) পাইন গাছ 

১.৪ ‘যেতে পারি কিন্তু কেন যাব’ কাব্যগ্রন্থটির রচয়িতা- 

(ক) নীরেন্দ্রনাথ চক্রবর্তী (খ) অরুণ মিত্র (গ) শক্তি চট্টোপাধ্যায় (ঘ) অমিয় চক্রবর্তী

উঃ (গ) শক্তি চট্টোপাধ্যায় 

১.৫ পূর্ববঙ্গের মাহুতের ভাষায় ‘মাইল’ শব্দের অর্থ-

(ক) পিছনে যাও (খ) সাবধান (গ) বস (ঘ) কাত হও

উঃ (খ) সাবধান  

Sikkhalaya

২. খুব সংক্ষেপে নীচের প্রশ্নগুলির উত্তর দাওঃ 

২.১ ‘ও তো পথিকজনের ছাতা’ – পথিকজনের ছাতা কোনটি?

উত্তরঃ- “নীরেন্দ্রনাথ চক্রবর্তী”-র লেখা ‘ভরদুপুরেকবিতা’-য় অশথগাছটিকে পথিকজনের ছাতা বলা হয়েছে। 

২.২ “এখানে বাতাসের ভিতর সব সময় ভিজে জলের ঝাপটা থাকে।” – কেন এমনটি হয়?  

উত্তরঃ- “শ্যামলগঙ্গোপাধ্যায়” রচিত ‘সেনাপতিশংকর’ গল্পে পাঁচ-সাত মাইলের ভিতরে বঙ্গোপসাগর, তাই এখানে বাতাসের ভিতর সবসময় ভিজে জলের ঝাপটা থাকে।

২.৩ ‘মন ভালো করা’ কবিতায় কবি রোদ্দুরকে কীসের সঙ্গে তুলনা করেছেন?

উত্তরঃ- “শক্তি চট্টোপাধ্যায়” রচিত “মন ভালো করা” কবিতায় কবি রোদ্দুরকে মাছরাঙা পাখির গায়ের সঙ্গে তুলনা করেছেন।

২.৪ “আমি কথা দিয়ে এসেছি”– কথক কোন কথা দিয়ে এসেছেন?

উত্তরঃ- “অরুণ মিত্র” রচিত “ঘাসফডিং” কবিতায় কথক কথা দিয়ে এসেছেন যে, তাকে ভিজে ঘাসের উপর যেতেই হবে।

subscribe to sikkhalaya

৩. নীচের প্রশ্নগুলির উত্তর নিজের ভাষায় লেখোঃ 

৩.১ ‘দাঁড়ায়ে রয়েছে পামগাছ মরুতটে।’ – কে এমন স্বপ্ন দেখে? কেন সে এমন স্বপ্ন দেখে?

উত্তরঃ- কবি “হাইনরিখ হাইনে” রচিত “পাইন দাঁডিয়ে আকাশে নয়ন তুলি” কবিতায় পাইনগাছ এমন স্বপ্ন দেখে। 

পাইন গাছ যেখানে থাকে, তা শীতের দেশ। তার সেখানে ভালোলাগেনা। তার ভালোলাগে, দূরের কিছুকে। আর এখানে বরফের অতিরিক্ত ঠান্ডা, পাইন গাছের কষ্ট ও যন্ত্রণার কারণ। সে উত্তাপ ও উষ্ণতা চায়। তার কাছে, গরম দেশ বা স্থান স্বপ্ন দেখার বিষয়, অর্থাৎ ঠান্ডার থেকে তার কাছে গরম জায়গাই প্রত্যাশিত, সেই জন্যই পাইন গাছ পাম গাছের স্বপ্ন দেখে।

৩.২ “তাই তারা স্বভাবতই নীরব।”– কাদের কথা বলা হয়েছে? তারা নীরব কেন?

উত্তরঃ- লেখক “সুবিনয় রায়চৌধুরী” রচিত “পশুপাখির ভাষা” রচনায় বন্য প্রাণীদের সম্বন্ধে এই কথা বলা হয়েছে।

 জঙ্গলের পশুকে সর্বদাই প্রাণ বাঁচিয়ে চলতে হয়। আক্রমণ করা এবং আত্মরক্ষার জন্য তাদের তৈরি থাকতে হয়। তাই জঙ্গলের মাঝে তারা স্বভাবতই নীরব থাকে।

৩.৩ “এরা বাসা তৈরি করবার জন্য উপযুক্ত স্থান খুঁজতে বের হয়।”– উপযুক্ত স্থান খুঁজে নেওয়ার কৌশলটি ‘কুমোরে-পোকার বাসাবাড়ি’ রচনাংশ অনুসরণে লেখো৷

উত্তরঃ- লেখক “গোপালচন্দ্র ভট্টাচার্য” রচিত “কুমোরে পোকার বাসাবাড়ি” গল্পে কুমোরে পোকা ডিম পাড়ার সময় হলেই এরা বাসা তৈরি করবার জন্য উপযুক্ত স্থান খুঁজতে বের হয়। দুই চারদিন ঘুরে-ফিরে মনোমতো কোনো স্থান দেখতে পেলেই তার আশপাশে বারবার ঘুরে বিশেষভাবে পরীক্ষা করে দেখে। তারপর খানিক  দূরে গিয়ে আবার ফিরে আসে এবং স্থানটাকে পুনঃ-পুনঃ দেখে নেয় । দুই-তিনবার এইরূপ ভাবে উড়ে অবশেষে তাকে উপযুক্ত স্থান হিসেবে নির্বাচন করে।

model activity task

৪. নির্দেশ অনুসারে উত্তর দাওঃ 

৪.১ বিসর্গ সন্ধিতে বিসর্গ রূপান্তরিত হযে ‘র’ হচ্ছে – এমন দুটি উদাহরণ দাও।

উত্তরঃ-  নিঃ + আমিষ = নিরামিষ

            প্রাতঃ + রাশ = প্রাতরাশ

৪.২ বিসর্গ সন্ধিতে বিসর্গ লুপ্ত হয়ে আগের স্বরধ্বনিকে দীর্ঘ করছে – এমন দু’টি উদাহরণ দাও।

উত্তরঃ- নিঃ + রোগ = নীরোগ

           নিঃ + রব = নীরব

 

৪.৩ উদাহরণ দাও– জোড় বাঁধা সাধিত শব্দ, শব্দখণ্ড বা শব্দাংশ জুড়ে সাধিত শব্দ।

উত্তরঃ- 

জোড়বাঁধা সাধিত শব্দের উদাহরণঃ-

দশানন, পটলতোলা, জলখাবার 

শব্দখণ্ড বা শব্দাংশ জুড়ে সাধিত শব্দঃ-

প্রিয়তম, ক্ষুদ্রতম

৪.৪ সংখ্যাবাচক ও পূরণবাচক শব্দের পার্থক্য কোথায়?

উত্তরঃ-

I) ভাষাতত্বে গণনার উদ্দেশ্যে ব্যবহৃত পদ গুলিকে সংখ্যাবাচক শব্দ বা সংখ্যাবাচক পদ বা সংখ্যাবাচক বিশেষণ বলা হয়।

      একই সারি, দল বা শ্রেণীতে অবস্থিত কোন ব্যক্তি বা বস্তুর ক্রম বা পর্যায় বোঝাতে যে সংখ্যা বাচক শব্দ ব্যবহার করা হয় তাকে ক্রম বা পূরণবাচক শব্দ বলে।

II) সংখ্যাবাচক শব্দের উদাহরণঃ- এক, দুই, তিন।

    পূরণবাচক শব্দের উদাহরণঃ- প্রথম, দ্বিতীয়, তৃতীয়। 

 

sikkhalaya

Leave a Reply

Your email address will not be published.

You cannot copy content of this page