সন্ধি 

শিক্ষালয় ওয়েবসাইটের পক্ষ থেকে এই পোষ্টে সন্ধি সম্পর্কে কিছু গুরুত্বপূর্ণ আলোচনা প্রদান করা হলোঃ- 

 

প্রশ্নঃ সন্ধি কাকে বলে? 

সন্ধি বাংলা ব্যাকরণে শব্দগঠনের একটি মাধ্যম। এর অর্থ মিলন। সন্নিহিত দুটি ধ্বনি মিলিয়ে একটি ধ্বনিতে পরিণত হওয়াকে বা পরস্পর সন্নিহিত দুই বর্ণের মিলনকে সন্ধি বলে। সন্ধি‬ বাংলা ব্যাকরণের ধ্বনিতত্ব অংশে আলোচিত হয়। ধ্বনিগত মাধুর্য এবং স্বাভাবিক‬ উচ্চারণে সহজপ্রবণতা সন্ধির উদ্দেশ্য। যেকোনো পদের সঙ্গে সন্ধি হয়ে নতুন শব্দ তৈরি হতে পারে। তবে বাংলা অব্যয় পদের সঙ্গে সন্ধি হয় না।

সন্ধির দ্বারা দুটি শব্দকে মিলিয়ে একটি নতুন শব্দ তৈরি করা হয়। যেমন- দেব শব্দটির অর্থ দেবতা এবং আলয় শব্দের অর্থ গৃহ। এই দুটি শব্দ মিলে তৈরি হয় দেবালয়, যার অর্থ দেবতার থাকার স্থান বা ঘর।

 

প্রশ্নঃ সন্ধির উদ্দেশ্য কি?

সন্ধির উদ্দ্যেশ্য হলো:

  1. বাক্যকে সুন্দর, প্রাঞ্জল ও সহজবোধ্য করা।
  2. নতুন শব্দ তৈরি করা।
  3. শব্দকে সংক্ষিপ্ত করা।
  4. বাক্যকে সংক্ষিপ্ত করা।
  5. উচ্চারণে স্বাচ্ছন্দ্য আসে।
  6. ধ্বনিগত মাধুর্য রক্ষা করা।

 

প্রশ্নঃ সন্ধির প্রকারভেদ কয়টি?

সন্ধি প্রধানত দুই প্রকার। যথাঃ 

ক) বাংলা সন্ধি
খ) তৎসম সন্ধি

 

বাংলা সন্ধি আবার ২ প্রকার। যথাঃ 
ক) স্বরসন্ধি 
খ) ব্যঞ্জনসন্ধি 

 

তৎসম সন্ধি তিন প্রকার।
ক) স্বরসন্ধি 
খ) ব্যঞ্জনসন্ধি 
গ) বিসর্গসন্ধি

 

সন্ধি সম্পর্কে আরো বিষদে জানতে শিক্ষালয় ওয়েবসাইটের ব্যাকরণ বিভাগ অনুসরণ করুন। 

 

শিক্ষালয় ওয়েবসাইটের সকল প্রকার নোট, সাজেশন, প্রশ্নপত্র ও মক টেষ্টের সুবিধা গ্রহণ করতে নিম্নের ছবিতে ক্লিক/টাচ করে বিষদ তথ্য জেনে নাওঃ

paid courses

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

You cannot copy content of this page