সন্ডার্সের হাতটা মুঠো করে ধরলাম

সন্ডার্সের হাতটা মুঠো করে ধরলাম

শিক্ষালয় ওয়েবসাইটের পক্ষ থেকে নবম শ্রেণির শিক্ষার্থীদের জন্য প্রফেসর শঙ্কুর ডায়রির অন্তর্গত স্বর্ণপর্ণী গল্প থেকে ‘সন্ডার্সের হাতটা মুঠো করে ধরলাম’- এই গুরুত্বপূর্ণ উদ্ধৃতাংশটি দিয়ে প্রশ্নের উত্তর প্রদান করা হলো। শিক্ষার্থীরা স্বর্ণপর্ণী গল্পের অন্যান্য গুরুত্বপূর্ণ প্রশ্নের উত্তরগুলি ওয়েবসাইটের নোট বিভাগে দেখতে পারবে। 

শিক্ষালয় ওয়েবসাইটের সকল প্রকার আপডেট লাভ করতে মোবাইল স্ক্রিনের বা’দিকের নিম্নের অংশে থাকা বেল আইকনটিতে (🔔) টাচ করে শিক্ষালয় ওয়েবসাইটের নোটিফিকেশন অন করে রাখুন। 

১) ‘সন্ডার্সের হাতটা মুঠো করে ধরলাম – মুখে বলতে পারলাম না’- সন্ডার্সের হাত মুঠো করে ধরার কারণ কী? কথক মুখে কিছু বলতে পারলেন না কেন? ৩+২

উৎসঃ 

“সত্যজিৎ রায়” রচিত “প্রফেসর শঙ্কুর ডায়রি”র অন্তর্গত “স্বর্ণপর্ণী” গল্প থেকে প্রশ্নোক্ত অংশটি গৃহীত হয়েছে। 

সন্ডার্সের হাত মুঠো করে ধরার কারণঃ 

ভারতপ্রেমিক সংস্কৃতজ্ঞ পণ্ডিত হাইনরিখ স্টাইনারের প্রাণ বাঁচাতে শঙ্কু জীবনের ঝুঁকি নিয়ে জার্মানির উদ্দেশে পাড়ি দেন। সেখানে মিরাকিউরলের গুণে অধ্যাপক স্টাইনার আরোগ্য লাভ করেন। কিন্তু প্রধান গোয়রিং এবং তাঁর বাহিনীর খপ্পরে পড়েন। গোয়রিং-এর লক্ষ্য ছিল নিজের গ্ল্যান্ডের গোলমাল সারানো এবং মিরাকিউরলকে নাতসিবাহিনীর কুক্ষিগত করা। নিরুপায় শঙ্কু ওষুধ দিতে বাধ্য হলেও, স্বপ্নে পাওয়ার গল্প ফেঁদে গোয়রিংকে স্টাইনারের প্যারিস যাত্রা নির্বিঘ্ন করতে বাধ্য করেন।

এরপর কয়েকটি চমকপ্রদ ঘটনা ঘটে। মিরাকিউরল খেয়ে ক্রমে গোয়রিং ও এরিখ একে একে ঘুমিয়ে পড়েন। এই সুযোগের সদ্ব্যবহার করে সন্ডার্সের দেওয়া লুগার অটোম্যাটিকের সাহায্যে ড্রাইভারকে ভয় পাইয়ে শঙ্কু নিজেকে নাতসিদের কবলমুক্ত করেন।

কিন্তু ইংল্যান্ডে ফিরেও তাঁর মন থেকে বিপরীত ভাবের দ্বন্দ্ব কাটছিল না। বিশেষত দুজন নরপিশাচ মিরাকিউরলের গুণে চিরআরোগ্য লাভ করল, এই অনুভূতি তাঁর মনকে বিষিয়ে তুলছিল। তখন দূরদর্শী সন্ডার্সের কাছ থেকে মিরাকিউরলের বদলে ঘুমের ওষুধ ভরে দেওয়ার কাহিনি শুনে শঙ্কুর মন থেকে সমস্ত অন্ধকার ও অস্পষ্টতা দূর হয়। ঘুমের ওষুধে নরঘাতকদের বিন্দুমাত্র উপকার হবে না বুঝে, অভিভূত হয়ে তিনি সন্ডার্সের হাত মুঠো করে ধরেন।

কথক মুখে কিছু বলতে না পারার কারণঃ 

গল্পের এই অংশে জেরেমি সন্ডার্সের বিচক্ষণতা, বুদ্ধিমত্তা এবং দূরদর্শিতার যে পরিচয় পাই, তার জন্য কোনো প্রশংসাই যথেষ্ট নয়। তাঁর দেওয়া ঘুমের ওষুধ যেমন শঙ্কুকে পালানোর সুযোগ করে দিয়েছে তেমনই সন্ডার্সের রিভলভারও বিপদের সময় কাজে দিয়েছে। বন্ধুর প্রতি এই আন্তরিক ভালোবাসা, একাত্মবোধ এবং সমমর্মিতা ভাষায় প্রকাশ না-করে হৃদয়ে অনুভব করার বিষয়, তাই শঙ্কু মুখে কিছু বলতে পারেননি।

স্বর্ণপর্ণী গল্পের অন্যান্য গুরুত্বপূর্ণ প্রশ্নের উত্তরগুলি দেখতে এই লিঙ্কটি অনুসরণ করতে হবে 

শিক্ষালয় ওয়েবসাইটের কিছু গুরুত্বপূর্ণ লিঙ্ক নিম্নে প্রদান করা হলোঃ

শিক্ষালয়ের সাথে ফেসবুকে যুক্ত হতে নিম্নের ছবিতে ক্লিক/টাচ করতে হবেঃ sikkhalaya

Ads Blocker Image Powered by Code Help Pro

Ads Blocker Detected!!!

আমরা শনাক্ত করেছি যে আপনি বিজ্ঞাপন ব্লক করতে এক্সটেনশন ব্যবহার করছেন। এই বিজ্ঞাপন ব্লকার নিষ্ক্রিয় করে আমাদের সমর্থন করুন।

Powered By
100% Free SEO Tools - Tool Kits PRO

You cannot copy content of this page

Need Help?