নবম শ্রেণি বাংলাঃ খেয়া

“নবম শ্রেণি বাংলাঃ খেয়া” কবিতা থেকে এখানে গুরুত্বপূর্ণ কিছু নোট প্রদান করা হলো। শিক্ষার্থীরা নির্দিষ্ট নোটে টাচ/ক্লিক করে সেই বিষয়ের নোটগুলি দেখতে পারবে।

নবম শ্রেণি বাংলাঃ খেয়া কবিতার বিষয়বস্তু আলোচনা করা হলোঃ

নবম শ্রেণি বাংলাঃ খেয়া কবিতার ছোট প্রশ্নের উত্তরঃ

১) রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর রচিত ‘খেয়া’ কবিতাটি কোন কাব্যগ্রন্থের অন্তর্গত?

উঃ রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর রচিত ‘খেয়া’ কবিতাটি চৈতালি কাব্যগ্রন্থের অন্তর্গত।

২) ‘চৈতালি’ কাব্যটি কোন সময়ে গ্রন্থাকারে প্রকাশিত হয়?

উঃ রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের ‘চৈতালি’ কাব্যগ্রন্থটি ১৩০৩ বঙ্গাব্দের চৈত্র মাসে গ্রন্থাকারে প্রকাশিত হয়।

৩) শিরােনামসূচি অনুযায়ী ‘খেয়া’ কবিতাটি ‘চৈতালি’ কাব্যগ্রন্থের কত সংখ্যক কবিতা? 

উঃ শিরােনামসূচি অনুযায়ী ‘খেয়া’ কবিতাটি চৈতালি কাব্যগ্রন্থের উনিশ সংখ্যক কবিতা। 

৪) ‘চৈতালি’ কাব্যগ্রন্থে মােট কতগুলি কবিতা রয়েছে?

উঃ চৈতালি কাব্যগ্রন্থে মােট ৭৯টি কবিতা রয়েছে।

৫) ‘চৈতালি’ কাব্যগ্রন্থের অধিকাংশ কবিতা কোন বাংলা মাসে লিখিত? 

উঃ চৈতালি কাব্যগ্রন্থের অধিকাংশ কবিতা চৈত্র মাসে লিখিত। কবি তাই বছরের শেষ উৎপন্ন শস্যের নামেই এই কবিতাটির নামকরণ করেছেন।

৬) ‘খেয়া’ কবিতাটিতেই পঙক্তি রয়েছে?

উঃ যে কবিতাটিতে মোট ১৪টি পঙক্তি রয়েছে। 

৭) নদীতে কী পারাপার করে?

উঃ নদীর একপারের মানুষকে বিভিন্ন প্রয়ােজনে অন্য পারে পৌঁছে দিতে নদীস্রোতে খেয়া নৌকা পারাপার করে। 

৮) ‘খেয়া’ কবিতায় নদীর দুই তীরে কী আছে?

উঃ বিশ্বকবি ‘রবীন্দ্রনাঠ ঠাকুর’ রচিত ‘খেয়া’ কবিতায় নদীর দুই তীরে পরস্পরের পরিচিত দুটি গ্রাম আছে। 

৯) ‘আছে জানাশােনা’- কাদের মধ্যে জানাশােনা রয়েছে?

উঃ দুটি গ্রামের মধ্য দিয়ে বয়ে চলা নদীর দুই তীরের মানুষদের মধ্যে জানাশােনা রয়েছে।

১০) খেয়া নৌকা বলতে কী বােঝ? 

উঃ নদী বা বড়াে জলাশয় পারাপারের জন্য ব্যবহৃত ছােটো নৌকাকে খেয়া নৌকা বলা হয়ে থাকে।

১১) ‘সকাল থেকে সন্ধ্যা’ দুই গ্রামের মানুষ কী করে?

উঃ ‘সকাল থেকে সন্ধ্যা’ – দুই গ্রামের মানুষ নানা প্রয়ােজনে একে অন্যের গ্রামে আনাগােনা করে। 

১২) পৃথিবীতে নতুন নতুন কী গড়ে ওঠে?

উঃ পৃথিবীতে নতুন নতুন ইতিহাস গড়ে ওঠে।

১৩) ‘খেয়া’ কবিতায় বাস্তব সভ্যতার কী উঠে আসে?

উঃ ‘খেয়া’ কবিতায় বাস্তব সভ্যতার নব নব তৃষ্ণা-ক্ষুধা উঠে আসে। 

 

নবম শ্রেণির বাংলা বিষয়ের অধ্যায়ভিত্তিক MCQ প্রশ্নের MOCK TEST প্রদান করতে এই লিঙ্কে ক্লিক/টাচ করতে হবে 

 

নবম শ্রেণি বাংলাঃ খেয়া কবিতার বড়ো প্রশ্নের উত্তরঃ

১) “এই খেয়া চিরদিন চলে নদী স্রোতে”- প্রাসঙ্গিকতা উল্লেখ করে তাৎপর্য বিশ্লেষণ করো। ৫

উৎসঃ

বিশ্বকবি “রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর” রচিত “চৈতালি” কাব্যগ্রন্থের অন্তর্গত “খেয়া” কবিতা থেকে প্রশ্নোক্ত অংশটি চয়ন করা হয়েছে।

প্রাসঙ্গিকতাঃ

মানব জীবনকে এক বৃহত্তর প্রেক্ষাপটে অবলোকন করে কবি উপলব্ধি করেছেন, মানবসভ্যতার বিবর্তন নানান উত্থান-পতন ও সৃষ্টি-ধ্বংসের মধ্য দিয়ে ঘটে চলে। এই বিবর্তনের পাশাপাশি তিনি নিসর্গসৌন্দর্যের আবহমানতাকে খেয়াতরি, নদীস্রোত তথা গ্রাম্য মানুষদের আসা-যাওয়ার প্রতীকে প্রতীকায়িত করেছেন। যার পরিচয় আমরা উদ্ধৃত অংশের মধ্যেও লাভ করি।

তাৎপর্যঃ

নদীকে কেন্দ্র করে গড়ে ওঠা দুটি গ্রামের মানুষের নিরন্তর আনাগোনাকে পর্যবেক্ষণ করে কবি তার কবিতায় তাদের কথা তুলে ধরেছেন-

“কেহ যায় ঘরে, কেহ আসে ঘর হতে।”

জীবন-মৃত্যুর প্রতীক দুটি গ্রামের মাঝে পারাপারকারী মানুষেরা কেউ নিজের ঘরে প্রত্যাবর্তন করে, আবার কেউ বা অজানার উদ্দেশ্যে পাড়ি দেয় জীবনযুদ্ধে জয়ী হতে। তাদের নিরন্তর চলাকেই প্রত্যক্ষ করেছেন কবি।

মানব জীবন হলো বহমান নদীর ন্যায়। জীবনভর মানুষকে তাই পারাপার করতে চলতে হয়। পুরাতন যুগের অবসান ঘটে, নতুন যুগের আগমন হয়। পৃথিবীর সকল হিংসা, হানাহানি, সংঘাতের উর্দ্ধে প্রকৃতির সুনিবিড় ছায়া ঘেরা গ্রাম্য পরিবেশে যাত্রীদল খেয়া নৌকার চলনকে গতি প্রদান করে চলে যুগ-যুগান্তর ধরে।

সভ্যতার বিবর্তনের ইতিহাসের এই ধ্রুব সত্যটিকেই কবি তার “খেয়া” কবিতার প্রশ্নোক্ত অংশটির মধ্য দিয়ে প্রতিষ্ঠা করেছেন।

 

নবম শ্রেণি বাংলাঃ খেয়া কবিতা থেকে আরো কিছু গুরুত্বপূর্ণ বড়ো প্রশ্নের উত্তরঃ  

“নতূন নতূন কত গড়ে ইতিহাস”- প্রসঙ্গ উল্লেখ করে তাৎপর্য লেখো।

উত্তর জানতে এখানে টাচ/ক্লিক করতে হবে

“পৃথিবীতে কত দ্বন্দ্ব কত সর্বনাশ”- ‘দ্বন্দ্ব’ ও ‘সর্বনাশ’ বলতে কী বোঝ? এই দ্বন্দ্ব ও সর্বনাশ পৃথিবীতে কীসের ভূমিকা পালন করেছে? তাঁর সঙ্গে খেয়া নৌকার যোগ কোথায়?

উত্তর জানতে এখানে টাচ/ক্লিক করতে হবে

“উঠে কত হলাহল, উঠে কত সুধা”- ‘হলাহল’ ও ‘সুধা’ শব্দদ্বয়ের প্রাসঙ্গিকতা বিচার করো। সভ্যতার ইতিহাসে ‘শব্দদ্বয়’ কোন্‌ ভূমিকা পালন করেছে?

উত্তর জানতে এখানে টাচ/ক্লিক করতে হবে

“সোনার মুকুট কতো ফুটে আর টুটে”- প্রসঙ্গ উল্লেখ করে তাৎপর্য বিশ্লেষণ করো।

উত্তর জানতে এখানে টাচ/ক্লিক করতে হবে

নবম শ্রেণির বাংলা অধ্যায়ভিত্তিক PDF নোটের জন্য এই লিঙ্কে ক্লিক/টাচ করতে হবে 

You cannot copy content of this page